শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

তবুও ডাক দিয়ে যাই আল্লামা আহমদ শফী হাফিজাহুল্লাহকে। লাবিব আবদুল্লাহ

ছবির কবি লেখক লাবিব আবদুল্লাহ 

সকল বয়ান বিবৃতি থেকে বিরত রাখার ব্যবস্থা করে ইযযত সম্মান হেফাজত করা হোক৷
অন্যথা তিনি আবার আওয়ামী লীগ বা দেশের স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে কথা বলে আবার বিপদ টেনে আনবেন৷
বুযুর্গ আলেমদের নিয়ে সব ধরনের ব্যবসা বাণিজ্য কবে বন্ধ হবে জানি না তবে তল্পিবাহক চামচা এবং বাছুরমার্কা সাহেবজাদাদের কবল থেকে বুযুর্গদের রক্ষা না করতে পারলে কওমী মাদরাসার ইমেজ আরও তলানীতে যাবে৷

সনদের স্বীকৃতি পেয়ে কী কী ফায়দা হয়েছে বা ক্ষতি হয়েছে সময় তা বলে দিবে৷ প্রশ্ন ফাঁস তো বহুত ফায়দার কাজ হয়েছে! কওমী নেসাবকে পরীক্ষা পাসের জন্য বাঙালায়ণ করে নোট গাইড পাঠ আরও একটি ফায়দা! আগামীতে স্বীকৃত সনদে কিছু না করতে পেরে স্বীকৃতরা হতাশার সাগরে ভাসতে পারেন সেটিও বহুত উপকারী কাজ হতে পারে!
ফাযায়েলে স্বীকৃতি নিয়ে যারা বন্দনা গাইছেন তাহারা এইসব নিয়ে চুপ থাকিয়া বলিবেন আমরা এই স্বীকৃতি চাই নাই৷
যারা জয় বলছেন জিন্দাবাদ বলতে সময় লাগবে না!

এই জাতীয় লেখালেখি বাদ দিয়েছিলাম৷

কওমী মাদরাসাকে এইসব বাজে কথা বলে বলে রাজনীতির বলির পাঠা বানানো হচ্ছে তাই সামান্য কথা বললাম৷
কওমীর সুরক্ষায় অসৎ স্বার্থবাজ নেতাদেরকে বিদায় করার আন্দোলন কবে শুরু হবে জানি না৷
আপনারা যারা মাদার অব কওমী বলেছিলেন তাহারা কোথায়? কওমী মাদরাসাকে আপনারা কোন চিড়ায়াখানা বানাতে চান!
দীন নিয়ে ব্যবসা করলে অপমানিত হবেই৷
দিল থেকে মুছে দিবে জনতা এইসব ধাপ্পাবাজদের নাম৷

কওমী মাদরাসাকে বিতর্কিত না করে সবাই দীনের খাদেম হয়ে সৌভাগ্যবান মনে করবেন এই ডাক দিয়ে যাই৷

লেখক, উম্মাহ চিন্তক

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য