শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

মুসলামানদের কল্যাণের উদ্দশ্যে প্রতিষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামী রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি তোলার অধিকার কারো নেই : নেজামে ইসলাম পার্টি



নিজস্ব প্রতিনিধি: তামাদ্দুন২৪ডটকম।

ডাকসু’র সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্মভিত্তিক ছাত্র সংগঠনের তৎপরতা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি। আজ পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের জরুরী অধিবেশনে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পিছনে সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছেন নবাব সলিমুল্লাহ। তাঁর দান করা জায়গার ওপরেই প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। নবাব সলিমুল্লাহ ছিলেন হাকিমুল উম্মাত হযরত আশরাফ আলী থানভী রহ.এর মুরিদ। হযরত থানভীর পরামর্শেরই তিনি মুসলিম লীগ নামে দল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

নবাব সলিমুল্লাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এ অঞ্চলে মুসলিম জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে। অথচ সেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েই ধর্মবিরোধী তথা মুসলমানদের স্বার্থবিরোধী এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। এই অতি উৎসাহি কর্মকান্ডের পেছনে সুদুরপ্রসারী ষড়যন্ত্র আছে। দেশ থেকে ইসলাম ও ইসলামী রাজনীতিকে নির্মূল করার ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
ডাকসু’র এধরণের সিদ্ধান্ত বেআইনী। দেশের সংবিধানে সকল নাগরিককে মত প্রকাশ ও সংগঠন করার অধিকার দিয়েছে। ডাকসু দেশের নাগরিকদের সেই সাংবিধানিক অধিকার কেড়ে নিতে পারে না। কারণ ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয় কোন বিচ্ছিন্ন জনপদ নয়। বিভিন্ন ঐতিহাসিক আন্দোলন সংগ্রামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে প্রসংশনীয় ঐতিহাসিক ভূমিকা। ডাকসু’র এ ধরণের গণবিরোধী সিদ্ধান্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্যকে ম্লান করে দিবে।

নেজামে ইসলাম পার্টি আমীর আমীর মাওলানা সরওয়ার কামাল আজিজীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে আরো বক্তব্য রাখেন,মাওলানা ফজলুর রহমান, ড.আ.ফ.ম খালিদ হোসাইন, মাওলানা আব্দুল মাজেদ আতহারী, মুফতী মোহাম্মদ আলী, মাওলানা মুসা বিন ইজহার, মাওলানা মুস্তাফিজুর রহমান মাহমুদী, মাওলানা ইলিয়াস খান হাফেজ, মাওলানা আবু তাহের খান, আজিজুল হক ইসলামাবাদী, সৈয়দ এ কে এম কামরুল বারী, আনওয়ারুল কবীর, মুফতী দ্বীনে আলম হারুনী, মাওলানা মঞ্জুরুল কাদের চৌধুরী, মাওলানা মাতলুবুর রহমান, মাওলানা ক্বারী ফজলুল করীম জেহাদী, মাওলানা এরশাদ বিন জালাল, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম চৌধুরী, মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মাসউদ খান, হাফেজ মাওলানা আজিজুল হক, মাওলানা ফরিদুল হক, মাওলানা জহিরুল ইসলাম, মাওলানা সাইফুল ইসলাম, মাওলানা গোলাম কিবরিয়া, মাওলানা শরীফুর রহমান প্রমুখ।
নিচে অধিবেশনের আরোকিছু ছবি দেওয়া হলো।






একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য