শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

ইসলামের পরিচয়: আল্লামা আবু তাহের মিসবাহ



কোরআনুল কারীমে আল্লাহ তা’আলা ইরশাদ করেছেন-
নি:সন্দেহে আল্লাহর নিকট একমাত্র দ্বীন হচ্ছে ইসলাম। (আলে ইমরান, ৩:১৯)

দ্বীন অর্থ এমন একটি পূর্ণাঙ্গ ও সর্বাঙ্গীন জীবনব্যবস্থা যার মাধ্যমে দুনিয়ার ক্ষণস্থায়ী জীবনকে সঠিকভাবে যাপন করে মানুষ আখেরাতের অনন্ত জীবনে অফুরন্ত সুখ-শান্তির অধিকারী হতে পারে। কিন্তু মানুষ নিজের ইচ্ছামত কোন দ্বীন বা জীবনব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেনা। যদি করে, তাতে মানুষেরই বরবাদি। বিভিন্ন যুগে বিভিন্ন জাতির জন্য বিভিন্ন নবী ও রাসূলের মাধ্যমে আল্লাহ তা’আলা আসমানী ওহীরুপে যে তরীকা ও ব্যবস্থা নাযিল করেছেন এবং যার নাম তিনি ইসলাম রেখেছেন সেটাই হলো মানুষের জন্য আল্লাহর পক্ষ হতে অনুমোদিত একমাত্র দ্বীন ও জীবনব্যবস্থা এবং দুনিয়া-আখেরাতে কামিয়াবী ও সফলতা অর্জনের একমাত্র পথ।

পূর্ববতী নবী ও রাসুলগণ শুধু নির্দিষ্ট কোন জাতির জন্য এবং নিদৃষ্ট কোন সময়ের জন্য প্রেরিত হতেন। সুতরাং তাঁদের উপর নাযিলকৃত দ্বীনও ছিলো ঐ সময় এবং ঐ জাতির জন্য নির্ধারিত। এভাবে যুগে যুগে প্রত্যেক সম্প্রদায় ও জনগোষ্ঠীর কাছেই কোন না কোন নবী ও রাসূল প্রেরিত হয়েছেন। অবশেষ আল্লাহ তা’আলা হযরত মুহাম্মাদ ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সর্বশেষ নবী ও রাসূলরুপে কেয়ামত পর্যন্ত সমগ্র মানবজাতির জন্য প্রেরণ করেছেন।

ইরশাদ হয়েছে-
আর আমি প্রেরণ করিনি আপনাকে, তবে সমস্ত মানুষের জন্য সুসংবাদদাতা ও সতর্ককারীরুপে; তবে অধিকাংশ মানুষ জানে না। (সাবা: ৩৪:২৮)


লেখক, গবেষক, উম্মাহ চিন্তক, নেসাব সংস্ক্রারক ও বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন



একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য