শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

ধৈর্য বাড়ানোর উপায়। আনতারা লাবিবা


যেহেতু মানুষকে ধৈর্যধারণের আদেশ করা হয়েছে সেহেতু মহান আল্লাহ ধৈর্যধারণ ও তা বৃদ্ধির সহায়ক উপায়গুলোও বাতলে দিয়েছেন। মহান আল্লাহ তার প্রজ্ঞার দাবি অনুসারেই এটা করে থাকেন। তিনি আমাদের কোনো কাজের আদেশ করলে প্রথমে সেই কাজের পথ ও পদ্ধতি সম্পর্কে ধারণা দেন। উপায়-উপকরণগুলো সহজলভ্য করে দেন। একারণেই আমরা দেখতে, আল্লাহ রোগ দেওয়ার পাশাপাশি তার প্রতিষেধকও সৃষ্টি করেছেন এবং সঠিক রোগনির্ণয় ও চিকিৎসার শর্তে নিরাময়ের নিশ্চয়তাও দিয়েছেন।

বস্তুত ধৈর্যধারণ সাধনাসাপেক্ষ একটি গুণ। এই গুণ অর্জন করতে হলে দীর্ঘ অনুশীলন ও অধ্যবসায়ের প্রয়োজন পড়ে। মানুষের কাছে অনেক সময় এই সাধনা ও অধ্যবসায় কষ্টকর ও দুঃসহ বলে মনে হয়। তবে এটা অর্জন করা একেবারে অসম্ভব নয়। মানুষ চাইলে ইলম ও আমল তথা জ্ঞান ও কর্মের সমন্বয়ে এই গুণটি অর্জন করতে পারে। কেননা, জ্ঞান ও কর্মের মধ্যে শারীরিক ও আত্মিক ব্যাধির আরোগ্য রয়েছে। কাজেই ধৈর্যের গুণটি আয়ত্ত করতে হলে আমাদের জ্ঞান ও কর্মের পথ ধরেই অগ্রসর হতে হবে।
.
বই- সবর
লেখক - ইবনুল কায়্যিম আল -জাওযিয়্যা
ভাষান্তর - আব্দুল্লাহ মজুমদার
সম্পাদনা - আকরাম হোসাইন
প্রচ্ছদ মূল্য - ২৯০ টাকা


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য