শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

অপেক্ষা করেন! খুব শীঘ্রই ভয়াবহ পরিণতি আপনাদের জন্য এগিয়ে আসছে। মুফতী ওয়ালিউল্লাহ আরমান



তামাদ্দুন২৪ডটকম: এতবড় স্পর্ধা, দুঃসাহস কি করে হলো আপনাদের?

নবীপ্রেমী, ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের উপর গুলি চালিয়ে পৈশাচিক বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের মেতে ওঠার ক্ষমতা কোথা থেকে পেলেন আপনারা?

বুঝলাম আপনাদের মধ্যে মুসলমানিত্ব নেই। বুঝলাম আপনারা ইসলামের প্রতি ন্যূনতম ভালোবাসা রাখেন না। ইসলামের মহানবীকে কটূক্তি করলে আপনাদের কিচ্ছু যায় আসে না, সেটাও বুঝলাম।

কিন্তু আপনারা কি কোনো মায়ের গর্ভে জন্ম নেননি?

আপনারা কি কোনো পরিবারের সন্তান নন?

যে নবীকে নিজের জীবনের চেয়েও মুসলমানরা বেশি ভালবাসে। যখন তাকে ভিন্নধর্মের কেউ কটুক্তি করে, স্বাভাবিকভাবেই ধর্মপ্রাণ মুসলমানের মনে আঘাত লাগে।

তার ন্যায্য অধিকার রয়েছে ওই কুলাঙ্গারের বিচার এবং শাস্তির দাবি তোলার।

তার মানে কি এই যে, আপনি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রোগ্রাম শেষ করার অজুহাতে জনগণের পয়সায় কেনা অস্ত্র হাতে, জনগণের বেতনভুক্ত কর্মচারী হয়ে সেই জনগণ যারা সাংবিধানিক অধিকারে প্রাপ্ত ধর্মবিশ্বাস সংরক্ষণের দাবি নিয়ে রাজপথে নেমেছে, তাদেরকে পাখির মত গুলি করে হত্যা করবেন?

আপনার চাকরি আর উর্দির ক্ষমতা কত দিনের? আপনি দুনিয়াতে কত দিনের গ্যারান্টি নিয়ে এসেছেন? এভাবে নৃশংস কায়দায় মানুষ হত্যার জন্য আপনাকে জবাবদিহি করতে হবে না?

এই মুখ জান্নাতীদের মুখ। এই রক্ত শহীদের রক্ত। যারা ভোলার বোরহানউদ্দিনে তৌহিদি জনতার ওপর নজিরবিহীনভাবে গুলি চালিয়ে চারজনকে শহীদ এবং অসংখ্য মানুষকে ঝাঁঝরা করেছেন, পবিত্র রক্তে রাজপথ রঞ্জিত করেছেন, অপেক্ষা করেন খুব শীঘ্রই ভয়াবহ পরিণতি আপনাদের জন্য এগিয়ে আসছে।

লেখক: আলোচিত রাজনীতিবিদ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য