শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

ভোলার ঘটনায় সরকার দায় এড়াতে পারে না -আল্লামা মুফতি রুহুল আমীন


তামাদ্দুন২৪ডটকম: গওহরডাঙ্গা মাদরাসার মোহতামিম ও খাদেমুল ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা মুফতি রুহুল আমীন বলেছেন, শহীদের রক্ত কখনো বৃথা যায় না। ভোলা জেলার বোরহান উদ্দিনের চার শহিদের রক্তও বৃথা যাবে না। তাদের রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে ধর্ম অবমাননারোধ ও শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি অসাল্লামের মর্যাদা সংরক্ষণ আইন পাশ হবে ইনশাআল্লাহ। আজ কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড গওহরডাঙ্গা বাংলাদেশ কতৃক আয়োজিত তিন শতাধিক মাদরাসার মোহতামিম ও শিক্ষদের সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মুফতি রুহুল আমীন বলেন, আমরা কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড গওহরডাঙ্গা বাংলাদেশ দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিক সম্মেলন, স্বারকলীপি প্রদান, মানববন্ধণ, সভা-সমাবেশ এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে ব্যক্তিগত ভাবে সাক্ষাতকালে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে ধর্ম অবমাননারোধ ও শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ সা. এর মর্যাদা সংরক্ষণ আইন পাশের দাবী জানিয়ে আসছি। কিন্তু এ ব্যপারে সরকারের কার্যকারী পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় এবং ধর্ম অবমাননার প্রচলিত যে আইন আছে তার যথাযত প্রয়োগ না থাকায় দিন দিন নানা ভাবে ধর্ম অবমাননার মতো অনাকাঙ্খিক ঘটনা ঘটছে। যা কোন ভাবেই কাম্য নয়। সরকার এর দায় ভার এড়াতে পারে না।

মুফতি রুহুল আমীন ভোলার তৌহিদি জনতার ছয় দফা দাবী দ্রুত সময়ের মধ্যে বাস্তবায়ন করে পুলিশ কতৃক দায়ের কৃত মামলা প্রত্যাহার আটককৃতদের মুক্তি দেওয়ার দাবী জানান।
সভায় বক্তাগন দ্রুত সময়ের মধ্যে দোষী ব্যক্তিদের গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তির প্রদানের দাবী জানান। অন্যথায় আগামীতে এরকম কোন পরিস্থিতির তৈরী হলে যে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনার দায় ভার সরকার কেই বহন করতে হবে।

মুফতি মোহাম্মদ তাসনীম ও মুফতি মাকসূদুল হকের পরিচালনায় অন্যানের মধ্যে সভায় বক্তব্য রাখেন, গওহরডাঙ্গা মাদরাসার শাইখুল হাদিস মুফতি আব্দুর রউফ সংগঠনের মহাসচিব মাওলানা শামছুল হকে, সহসভাপতি মাওলানা কাবিরুল ইসলাম, মাওলানা আবুল কালাম, মুফতি আব্দুল হাফিজ, মুফতি মঈনুদ্দিন, মাওলানা হায়াত আলী, মাওলানা শিহাব উদ্দিন, হাফেজ আবু মুসা, তানজীমুল মুদাররিসিননের মাওলানা জিন্নাত আলী, মাওলানা জাহিদ আল হাসান, মাওলানা আতাউর রহমান প্রমুখ।

সভা শেষে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

দক্ষিণ বঙ্গের শীর্ষ উলামা মাশায়েখ গন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সাথে স্বাক্ষাত করে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে ধর্ম অবমাননারোধ ও শেষ নবী হযরত মুহাম্মাদ স. এর মর্যাদা সংরক্ষণ আইন পাশের প্রয়োজনীয়তা এবং ইসকনের কার্যক্রম সম্পর্কে তুলে ধরা ও শহীদদের পরিবারকে সমবেদনাজ্ঞাপন, আর্থিক সহায়তা প্রদান ও আহতদের চিকিতসার খোজ খবর নেওয়া আর্থিক সহায়তা প্রদানের জন্য তহবিল গঠন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

মোহাম্মদ তাসনীম
প্রেস সচিব
মোবাইল:০১৯১৪৮৪৬৮৩১
m.tas1989@gmail.com

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য