শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

দেশপ্রেমিক জনতার বৃহত্তর ঐক্য গঠনে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করতেন অধ্যাপক হেমায়েত - জাতীয় নেতৃবৃন্দ


তামাদ্দুন২৪ডটকম: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ অধ্যাপক হাফেজ মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন রহ.এর জীবন ও কর্ম শীর্ষক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল আজ রবিবার বিকেলে রাজধানীর কাজী বশির মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন দলের আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই।

আলোচনা সভায় অংশ নেন ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের আমীর ড. মাওলানা ঈশা শাহেদী, খেলাফত মজলিসের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের, দৈনিক ইনকিলাবের সিনিয়র সহকারী সম্পাদক মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নরে মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমতুল্লাহ, খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, বায়তুল মোকাররমের সিনিয়র পেশ ইমাম মাওলানা মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী, ইসলামী আন্দোলনের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, প্রিন্সিপাল মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, অনলাইন নিউজ পোর্টাল ইনসাফ সম্পাদক মাহফুজ খন্দকার, আওয়ার ইসলাম সম্পাদক হুমায়ূন আইয়ূব, জাসদ (রব) সভাপতি আসম আব্দুর রব শোক বার্তা প্রেরণ করেন, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, ছাত্রনেতা ফজলুল করীম মারূফ, মাওলানা আরিফুল ইসলাম, মরহুমের একমাত্র সাহেবজাদা হাফেজ মাওলানা জিয়াউদ্দিন প্রমুখ।

পীর সাহেব চরমোানাই বলেন, হেমায়েত উদ্দিন রাজনীতির অঙ্গণে একটি পরিচিত নাম। সকল আন্দোলন সংগ্রামে তিনি অত্যন্ত যোগ্যতা, দক্ষতা ও সচেতনতার সাথে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। দেশ ও ইসলামবিদ্বেষী শক্তির মোকাবেলায় তিনি অত্যন্ত বলিষ্ঠ ভুমিকা পালন করেছিলেন। আধিপত্যবাদী ও সম্প্রসারণবাদী শক্তির কাছে কখনো মাথানত করেননি। অন্যায় ও তাগুতি শক্তির মোকাবেলায় আপোসহীন সংগ্রাম করে গেছেন।

পীর সাহেব বলেন, এটিএম হেমায়েত উদ্দিন বহুগুণে গুনান্বিত একজন প্রতিবাদী মানুষ ছিলেন। তিনি সকালে কুরআনের খাদেম তৈরীর কাজে নিয়োজিত ছিলেন, দিনের দ্বিতীয় অংশ শিক্ষিত জাতি তৈরীতে নিয়োজিত থাকতেন আর তার পরবর্তী অংশে তিনি ইসলাম দেশ ও মানবতার কল্যাণে কাজ করে গেছেন। ইসলামী ও জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠায় তিনি আমরণ চেষ্টা করে গেছেন।

আব্দুল লতিফ নেজামী বলেন, অধ্যাপক এটিএম হেমায়েত উদ্দিনের ইন্তেকালে রাজনৈতিক অঙ্গণে যে শূণ্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা সহজে পুরণ হবার নয়। হেমায়েত উদ্দিন রহ. জীবনভর ইসলামী দলগুলোর মধ্যে ঐক্য প্রতিষ্ঠা করে দেশে ইসলামী শাসন কায়েমে নিরলসভাবে চেষ্টা করে গেছেন। ইসলাম ও দেশপ্রেমিক জনতার ঐক্যবদ্ধ প্লাটফরম গঠনে সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করতেন তিনি।

ড. ঈশা শাহেদী বলেন, আশির দশকে ইসলামী শিক্ষা ও আলীয়া মাদরাসা শিক্ষা সম্প্রসারণে বিভিন্ন দাবি নিয়ে আন্দোলন গড়ে তুলেছিলেন।

মাহফুজুল হক বলেন, হেমায়েত উদ্দিন ইসলামী হুকুমত প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি সামাজিক উন্নয়নের জন্যও কাজ করেছেন। তিনি মাদরাসায় খেদমতের মাধ্যমে আলেম তৈরি করতেন, কলেজে অধ্যাপনার মাধ্যমে আদর্শ ছাত্র গঠন করতেন।

সাংবাদিক মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, প্রকৃত মানুষ যাকে বলে তিনি ছিলেন হেমায়েত উদ্দিন। দেশপ্রেম, ধর্মীয় মূল্যবোধ রাজনৈতিক কর্মবীর ও ঐক্য প্রয়াসী নেতা ছিলেন তিনি। তার তুলনা তিনি নিজেই।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য