শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

অতিলোভে তাতি নষ্ট


তামাদ্দুন২৪ডটকম:একজনের ৫ রুটি অন্যজনের ৩ রুটি; খেলেন ৩ জনে মিলে।
অতিথি ব্যক্তি দিলেন ৮ টাকা; এখন রুটির মালিক দুজন কে কত টাকা পাবেন?
দুই মুসাফির পথিক এক সাথে যাচ্চেন। পথে তাদের সাথে যুক্ত হলেন তৃতীয় আরেকজন পথিক। পথে তারা বিশ্রাম নিবেন এবং খাওয়া দাওয়া করবেন। প্রথম পথিকদ্বয়ের প্রথম জনের কাছে ছিলো ৫টি রুটি, দ্বিতীয় জনের কাছে ছিলো ৩টি রুটি; তৃতীয় পথিকের কাছে কোনো রুটি ছিলো না। তারা তিন জনে ঐ ৫+৩= ৮টি রুটি ভাগ করে খেলেন। খাওয়া দাওয়া শেষে বিদায়ের পূর্বে তৃতীয় মুসাফির প্রথম দুই মুসাফিরকে ৮টি টাকা দিলেন। যেহেতু তৃতীয় মুসাফির প্রথম দুই মুসাফিরের দুজনের রুটিই খেয়েছেন এবং মোট রুটি ছিলো ৮টি এবং টাকাও ৮টি তাই প্রথম মুসাফির নিজে ৫টি টাকা রেখে দ্বিতীয় মুসাফিরকে ৩টি টাকা দিলেন।
দ্বিতীয় মুসাফির ছিলো লোভী এবং বোকা। সে ভাবলো একটু জোর করলে সমান ভাগ পাওয়া যাবে; কারণ তৃতীয় মুসাফির আমাদের দুজনের রুটিই খেয়েছেন, সুতরাং আমরা দুজনেই সমান ৪ টাকা করে (৪+৪=৮) পাবো। অর্থাৎ ৮ টাকা সমান দুই ভাগ হবে বেশি কম নয়।
তাকে বুঝানোর চেষ্টা করা হলো- তোমার রুটি কম আমার রুটি বেশি; সুতরাং আমার ৫ রুটি তাই ৫ টাকা আর তোমার ৩ রুটি তাই ৩ টাকা। কিন্তু সে মানলো না।
শেষমেষ বিজ্ঞ জ্ঞানী আলেমের কাছে সমাধানের জন্য পেশ করা হলো। তিনি বললেন: আসলে তোমাদের টাকার বণ্টন ইনসাফ মতো হয়নি। বরং ৫ রুটিওয়ালা পাবেন ৭ টাকা এবং ৩ রুটিওয়ালা পাবেন ১টাকা।
নে সবাই অবাক হলো। তখন বিজ্ঞ গিণিতজ্ঞ ব্যাখ্যা করলেন- মোট রুটি ৮টি, খেয়েছে ৩ জন; সুতরাং রুটির টুকরা বা অংশ হয়েছে (৩x৮) ২৪টি। প্রত্যেকে খেয়েছে ২৪ এর ৮টি অংশ।
৫টি রুটি প্রত্যেকটি ৩ টুকরা করলে হয় ১৫ অংশ।
৩টি রুটি প্রত্যেকটি ৩ টুকরা হরলে হয় ৯ অংশ।
মোট ৮টি রুটি প্রত্যেকটি ৩ টুকরা হরলে হয় ২৪টি অংশ।
প্রত্যেকে খেয়েছে ২৪/৩= ৮ অংশ বা টুকরা।
হিসেব মতো-
প্রথম ব্যক্তির ৫টি রুটি ১৫ টুকরা হয়েছে, তিনি খেয়েছেন ৮ টুকরা; তার অবশিষ্ট রয়েছে (১৫-৮=) ৭ টুকরা।
দ্বিতীয় ব্যক্তির ৩টি রুটি ৯ টুকরা, তিনি খেয়েছেন ৮ টুকরা; তার অবশিষ্ট রয়েছে (৯-৮=) ১ টুকরা।
তৃতীয় ব্যক্তি খেয়েছেন ৮ টুকরা; অর্থাৎ প্রথম ব্যক্তির অবশিষ্ট ৭ অংশ আর দ্বিতীয় ব্যক্তির অবশিষ্ট এক অংশ (৭+১=৮) মোট টুকরা।
অতএব ন্যায়সঙ্গতভাবে টাকার ভাগও হবে ৭ টাকা ও ১ টাকা (৭+১=৮)। অর্থাৎ প্রথম পথিক (৫ রুটিওয়ালা) পাবেন ৭টাকা আর দ্বিতীয় পথিক (৩ রুটিওয়ালা) পাবেন ১ টাকা।
এবার বোকা ও লোভী দ্বিতীয় পথিক হতাশ ও নিরাশ হয়ে ৩ টাকার স্থলে ১ টাকা নিয়ে প্রস্থান করতে হলো।
কিচ্ছা খতম!

সুত্র: মুফতী শায়খ মুহাম্মদ উসমান গণি


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য