শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

কাফির, মুশরিক এবং তাদের দালালদের জানাযা থেকে বিরত থাকুন।


তামাদ্দুন২৪ডটকম:

কেউ যদি ইসলামের সীমানা থেকে বের হয়ে যায় তবে কি তার যানাজা পড়া যাবে?

আমাদের দেশে এক সংস্কৃতি চালু হয়েছে, দেখা যায় প্রকাশ্য কাফির বা মুশরিক, সারাজীবন ইসলামের ক্ষতি করে গেছে, কাফিরদের দোসর ছিল কিন্তু মারা যাবার পর তাকে এক শ্রেণীর লোক জানাযা পড়ানোর জন্য হুজুর ম্যানেজ করে আনে আর মুসলমানদেরকে দিয়ে তাদের জানাযা পড়ায়। এটা ইসলামের বিধানের সাথে খুবই তামাশা। ঈমান ভাঙার মত কারণ। আসুন জেনে নেই মাসআলাটি।
.
জানাযা মূলত মুসলিমদের জন্য। কোন মুসলমান মৃত্যুবরণ করলে তার জন্য জীবিত মুসলিমগণ সম্মিলিতভাবে নামাযের মাধ্যমে যে দুআ করা হয় সেটাই যানাজা। এটা কাফির, মুশরিক, মুরতাদ ও মুনাফিকদের জন্য নয়। তাদের উপর যানাজা পড়া পরিপূর্ণ হারাম।
.
আল্লাহ ইরশাদ করেন (وَلا تُصَلِّ عَلَى أَحَدٍ مِنْهُمْ مَاتَ أَبَداً وَلا تَقُمْ عَلَى قَبْرِهِ) التوبة/84। =তাদের কেউ মারা গেলে কখনই তাদের উপর যানাজা পড়াবে না এবং তাদের কবরের পাশেও তোমরা দাঁড়াবে না।
ইমাম নববী রহ. তার ফতোয়ায়ে মাজমুআতে বলেন- " انتهى من "المجموع ) এদের উপর যানাজা পড়া হারাম-এ ব্যাপারে উলামাদের ঐক্য হয়েছে।
.
নবী স.সহ সাহাবীগণ কখনই মুসলিমরুপের মুনাফিকদের যানাজা পড়ান নি। আল্লাহ তাআলা সরাসরি নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন-
اسْتَغْفِرْ لَهُمْ أَوْ لاَ تَسْتَغْفِرْ لَهُمْ إِنْ تَسْتَغْفِرْ لَهُمْ سَبْعِينَ مَرَّةً فَلَنْ يَغْفِرَ اللَّهُ لَهُمْ)
আপনি যতই তাদের উপর যানাজা পড়েন না কেন আল্লাহ তাআলা কখনই তাদের ক্ষমা করবেন না।
.
ইববে বা’য (রহি.) কে প্রশ্ন করা হয়েছিল এদের ব্যাপারে হুকুম কি?তিনি বলেন- তাদের জানাযা করা যাবে না, মুসলিমদের কবরস্থানে দাফন করা নিষেধ।তাদেরকে কাফিদের গোরস্থানে পাঠাতে হবে। তাকে কোন মুসলমান গোছলও করাবে না, কাফনও পরিধান করাবে না।
-----------------------------------------------------------------------------------
অতএব হে মুসলিম ভাইগণ আপনারা কাফির, মুশরিক আর তাদের দোসরদের জানাযা থেকে বিরত থাকুন। নয়তো আল্লাহ তাআলার হুকুম অমান্য করার দ্বারা ঈমান ভেঙে যাবে। আল্লাহ আমাদেরকে বুঝা ও আমল করার তাওফিক দান করুন।

মুফতী মনোয়ার হোসেন, মাদরাসাতুল মাদিনা,বগুড়া।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য