শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

ড্রেনের পানিতে সয়লাব বিশ্ব ইজতেমা ময়দান

আমিন মুনশি : আখেরী মোনাজাত শেষ না হতেই ড্রেনের ময়লা পানিতে তলিয়ে গেছে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দান। রোববার দুপুরের মধ্যে মূলমঞ্চসহ ময়দানের অধিকাংশ এলাকা প্লাবিত হয়েছে ইজতেমায় ব্যবহৃত টয়লেট ও শিল্প এলাকার বর্জ্যযুক্ত অপরিষ্কার পানিতে।

তাবলিগ সাথীরা জানান, ময়লা আবর্জনায় সুয়ারেজ লাইন ব্লক হয়ে শনিবার রাত ৮টার দিকে দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা পানি ময়দানে ঢুকতে থাকে। ময়দানের ৭ নম্বর টয়লেট ভবনের পাশে ড্রেনের ম্যানহোল উপচে পানি প্রথমে ময়দানের ৪১ নম্বর খেত্তায় প্রবেশ করে। রাত ৯টায় দমকল বাহিনীরকর্মীরা এসে দুটি পাম্প চালু করে পাইপের সাহায্যে পানি অন্যত্র অপসারণের চেষ্টা করেন। রাতে ওই খেত্তার মুসল্লিরা অন্যান্য খেত্তায় আশ্রয় নেন। কিন্তু রোববার সকাল থেকে পানি প্রবেশ করে মূহুর্তের মধ্যে পানি চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। মুসল্লিরা মোনাজাতে অংশ নেওয়ায় একপর্যায়ে দমকল বাহিনীর চেষ্টাও ব্যর্থ হয়। মোনাজাত শেষ হতে না হতেই সুয়ারেজ লাইনের পানি ময়দানের ৮৬, ৩২, ৩৩, ৩৪, ৩৫, ৩৬, ৩৭, ৩৮, ৪২ নম্বর খেত্তাসহ আশপাশ প্লাবিত করে।

আখেরী মোনাজাতের পর ময়দান ঘুরে দেখা গেছে, ইজতেমার মূলমঞ্চসহ আশপাশের অধিকাংশ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। তাবলিগের সাথীরা তাদের বেডিংপত্র টেনে পাশের উঁচু জায়গায় স্থানান্তরের চেষ্টা করছেন। অনেকে রাস্তা ও ময়দানের পশ্চিম পাশের উঁচু টিলায় বিদেশীদের কামরা এলাকায় আশ্রয় নেন।

বগুড়া থেকে আসা তাবলিগের সাথী মো: আবুল হাসেম জানান, রাত ৯ টায় তাদের খেত্তায় পানি ঢুকলে সবাই অন্যত্র আশ্রয় নেন। ফায়ার সার্ভিসেরকর্মীরা পানি সেচে ফেলার পর তারা রাতে পুনরায় নির্ধারিত স্থানে ফিরে আসেন। রোববার আখেরী মোনাজাত চলাকালে আবারো তাদের খেত্তায় পানি প্রবেশ করে। মোনাজাত শেষ হতেই তারা ভিজা জিনিসপত্র নিয়ে অন্যত্র সরে যান।

স্থানীয়রা জানান, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পূর্ব পাশের শিল্প এলাকার বর্জ্য ওই ড্রেন দিয়ে তুরাগ নদীতে গিয়ে পড়ে। ড্রেনটি মূল শিল্প এলাকা থেকে টঙ্গী পূর্ব থানার পাশ দিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অতিক্রম করে টঙ্গী-আশুলিয়া বাইপাস (কামাড়পাড়া) সড়কের হয়ে তুরাগ নদে পড়েছে। ইজতেমা ময়দানের বহুতল টয়লেটের বর্জ্যও এই ড্রেন দিয়ে প্রবাহিত হয়।

এ ব্যপারে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের টঙ্গী অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী আনিসুর রহমান জানান, টঙ্গী পূর্ব থানা থেকে ইজতেমা ময়দান হয়ে তুরাগ নদী পর্যন্ত সুয়ারেজ লাইনটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের। গত তিন দিনের ইজতেমার বর্জ্যে ড্রেনটি ব্লক হয়ে গেলে পানি উপচে ময়দানে প্রবেশ করে। সিটি কর্পোরেশনের দমকলবাহিনী পানি অন্যত্র সেচে ফেলার ও ড্রেন পরিষ্কার করার চেষ্টা করছে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য