শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

মোদি-বিরোধী আন্দোলনে জোশের চেয়ে হুঁশের প্রয়োজন বেশি: আলেম বুদ্ধিজীবি আব্দুল হক


নিজস্ব প্রতিনিধি: তামাদ্দুন।
মোদি-বিরোধী আন্দোলনে জোশের চেয়ে হুঁশের প্রয়োজন বেশি। মিছিল-বন্ধন-বিক্ষোভ ঠিক আছে, ঘেরাওয়ের হুমকিও ঠিক আছে—তবে সত্যি সত্যি বিমানবন্দর ঘেরাও করতে যাওয়া ঠিক হবে না। কেন ঠিক হবে না?

কারণ বিক্ষোভের মুখে বিদেশী রাষ্ট্রপ্রধান বিমানবন্দর থেকেই নিজের দেশে ফিরে গেছেন, এমন ঘটনা কখনো কোথাও ঘটেছে বলে শোনা যায় না। কোনো স্বাগতিক দেশ এত বড় লজ্জা ও অপমান কিছুতেই মেনে নেবে না। ফলাফল তাহলে কী দাঁড়াচ্ছে?

দাঁড়াচ্ছে এই যে, বিমানবন্দর ঘেরাও করলে সরকার তাতে মোটেই নরম হবে না। কাঁদানে গ্যাস, জলকামান, শব্দবোমা এমনকি প্রয়োজনে গুলি করে সবাইকে ছত্রভঙ্গ করে দেবে। এ হচ্ছে পরের কথা—আর আগের কথা হলো, নির্ধারিত দিনে রাস্তায় লোক জড়ো হতেই দেয়া হবে না।

মনে রাখবেন, এই সরকার জনগণের ভোটের মুখাপেক্ষী নয়। কাজেই জনগণের মন-মর্জি রক্ষা করে চলা তার জন্যে জরুরি নয়। মন্ত্রীরা বলছেন, মোদির সঙ্গে আমাদের সরকারের রয়েছে 'রক্তের সম্পর্ক'। কাজেই মোদির মান বাঁচাতে রক্তপাত দরকার হলে সরকার তাতে দ্বিধা করবে বলে মনে হয় না।

মোদির কর্মকাণ্ড সারা দুনিয়া জানে। কাজেই আলিমসমাজের আন্দোলন ঠিক আছে। যার যা প্রাপ্য, তাকে সেটা দিতে হয়। মিছিল-বিক্ষোভের মাধ্যমে প্রতিবাদ জরুরি, কিন্তু প্রতিরোধের ডাক দেয়াটা মনে হয় বাড়াবাড়ি হয়ে যাচ্ছে। রাজনৈতিকভাবে আমাদের কপাল দুর্গতির কালিতে মাখামাখি হয়ে আছে, একজন মোদির আসা-না আসায় তাতে তেমন হেরফের ঘটবে না।

﹋﹋﹋﹋﹋﹋﹋﹋﹋﹋﹋﹋
⚪আবদুল হক ॥ ০৬-০৩-২০২০।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্য