শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

করোনার থাবায় রুদ্ধ ইতালি, বিশ্বব্যাপী মৃত ৩৮২৮

আমিন মুনশি : করোনা ভাইরাসের বিস্তার কিছুতেই রোধ করা যাচ্ছে না। বরং সারা বিশ্বে আরও দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। উৎপত্তিস্থল চীনের বাইরে এই ভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে ইতালিতে।

করোনার কারণে রুদ্ধ ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, দেশটিতে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলছে। সে সঙ্গে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। রবিবার (৮ মার্চ) ইতালিতে নতুন করে আরও ১ হাজার ৫৩২ জন ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আর এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩৩ জন।

ইতালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশটিতে এখন পর্যন্ত সবমিলিয়ে ৭ হাজার ৩৭৫ জন প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর দেশটিতে করোনার কারণে মৃতের সংখ্যা ৩৩৬ জনে পৌঁছেছে।

ইতালিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ার কারণে দেশটির লোম্বারদিয়া অঞ্চলের ১৪টি প্রদেশকে রেড জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ইতোমধ্যে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে লোম্বারদিয়া অঞ্চলের বিভিন্ন শহরের প্রায় ১ কোটি ৬০ লাখ মানুষকে।

এ দিকে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে তিন বছরের এক শিশু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ফলে ভারতে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪০ জনে পৌঁছাল। ওই শিশুটি সম্প্রতি তার পরিবারের সঙ্গে ইতালি থেকে দেশে ফিরেছে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, এর মধ্যে বিশ্বের প্রায় ১০৫টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১০ হাজার ৫৬ জন ব্যক্তি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ৩ হাজার ৮২৮ জন।

এর মধ্যে শুধুমাত্র চীনের মূল ভূখণ্ডেই ৮০ হাজার ৭৩৫ জন মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর এই ভাইরাসের কারণে চীনে মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ১১৯ জন মানুষের।

তবে চারদিকে যখন করোনার কারণে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে, তখন স্বস্তি পাওয়ার মতো একটি তথ্য দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠান দ্য সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসএসই)। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ৬২ হাজার ২৭৬ জন মানুষ চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে সক্ষম হয়েছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য