শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

ঢাকায় মাস্কের দাম বাড়িয়েছে অসাধু ব্যবসায়ীরা


আমিন মুনশি : রাজধানীর গুলশানে মাস্কের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে বেশি দামে বিক্রির অভিযোগে দুটি ফার্মেসিকে সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সোমবার (৯ মার্চ) গুলশানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ফার্মেসি দুটিকে সিলগালা করে দেয়।

প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- সাফাবি ফার্মেসি ও আল নূর ফার্মেসি। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করায় আল মদিনা নামে আরেকটি ফার্মেসিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মনজুর শাহরিয়ার বলেন, গোপন সংবাদে প্রতিষ্ঠানগুলোতে নজরদারি করা হয়। তারা ক্রেতাদের থেকে মাস্কের দাম কয়েক গুণ বেশি রাখছিল। আমরা ভিডিওতে এসব তথ্য ধারণ করেছি। পরে আমরা তাদের কাছে মাস্ক কিনতে গেলে তারা জানায়, তাদের কাছে মাস্ক নেই। অথচ এর আগে তারা বেশি দামে মাস্ক বিক্রি করেছে; যার প্রমাণ অধিদপ্তরের কাছে রয়েছে।

তিনি বলেন, জাতির এই ক্রান্তিকালে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে মাস্কের দাম বেশি নেওয়া হচ্ছে। এটা দণ্ডনীয় অপরাধ। এই অপরাধে দুই ফার্মেসিকে সিলগালা করা হয়েছে।

অধিদপ্তরের এই কর্মকর্তা বলেন, ঢাকায় আরও কয়েকটি জায়গায় মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে দাম বেশি রাখার অভিযোগ পেয়েছি। তাদের ধরে ব্যবস্থা নিতে অভিযান চলছে।

এ দিকে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) জানিয়েছে, বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত তিনজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে দুইজন পুরুষ ও একজন নারী। তাদের রাজধানীর একটি হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে দুইজন ইতালি থেকে এসেছেন। তাদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছর।

এ খবরে বাংলাদেশে মাস্ক কেনা অস্বাভাবিকভাবে বেড়েছে। অসাধু ব্যবসায়ীরা এরই সুযোগ নিচ্ছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য