শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

মহামারি-দুর্যোগে হজ বন্ধ থাকার ইতিহাস

আমিন মুনশি : মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে সারাবিশ্বেই। হাতে গোণা কয়েকটা দেশই মাত্র বাকি যেখানে এখনও করোনা ছড়ায়নি। করোনার কারণে স্থবির হয়ে আছে গোটা বিশ্ব। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এড়াতে ইতোমধ্যে বাতিল করা হয়েছে ধর্মীয় অনেক প্রোগ্রাম। প্রায় সমগ্র বিশ্বেই মসজিদে জুমা-জামাত সীমিত রাখা হয়েছে। কোথাও কোথাও সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে।

এদিকে ঘনিয়ে আসছে ইসলামের অন্যতম ইবাদত হজ্বের সময়। প্রতিবছর লাখ লাখ মানুষ হজ্ব আদায়ের জন্য মক্কায় সফর করেন। তবে বিশ্বজুড়ে করোনা পরিস্থিতির কারণে চলতি বছরের হজ্বের ব্যাপারে দেখা দিয়েছে চরম অনিশ্চয়তা। হজ্বের নিবন্ধনকারীরা পড়েছে মারাত্মক পেরেশানিতে। এ বছর বিশ্বজুড়ে পঁচিশ লাখ মানুষ হজ্বের নিবন্ধন করেছেন।

হজ্ব যদি এ বছর শেষ পর্যন্ত না হয় তবে এটা হবে গত দেড়শত বছরের মধ্যে হজ্ব বাতিল হওয়ার প্রথম ঘটনা। অবশ্য এর আগেও যুদ্ধ বিগ্রহ, মহামারীসহ নানা কারণে একাধিকবার হজ্ব বাতিল করা হয়েছিল।

হজ্ব বাতিলের প্রথম ঘটনা ঘটে ৯৩০ হিজরীতে। আব্বাসী খেলাফত আমলে সে বছর হজ্ব চলাকালে হাজীদের উপর হামলার জেরে ১০ বছর পর্যন্ত হজ্ব বন্ধ থাকে।

এ ঘটনার ৩৮ বছর পর ৯৬৮ হিজরিতে প্লেগের কারণে হজ্ব বন্ধ রাখা হয়। এর পর প্রায় ১০৩০ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন অঞ্চলে মহামারী ছড়িয়ে পড়ার কারণে সে অঞ্চলের মানুষের হজ্বের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এ ঘটনার প্রায় অর্ধ শতাব্দী পরে ১০৯৯ এবং ১১০০ হিজরি সালে মুসলিম বিশ্বে গৃহযুদ্ধের কারণে হজ্ব বন্ধ থাকে। এসময় খ্রিস্টানদের সাথেও মুসলমানদের তুমুল যুদ্ধ হয়। তখন ২০০ বছর ধরে কয়েক দফায় হজ্ব বাতিল করা হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন ইতিহাসে ৮৬৪ খ্রিস্টাব্দ থেকে ১৮৮৩ পর্যন্ত সময়ে আরও কয়েকবার হজ্ব বন্ধ থাকার কথা জানা যায়। সর্বশেষ হজ্ব বন্ধ থাকে ১৮৮৩ সালে। এরপর থেকে গত দেড়শ বছরে একবারও হজ্ব বাতিল করা হয়নি। তবে বিস্ময়ের কথা হলো, গত শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ মহামারী স্প্যানিজ ইনফ্লুয়েঞ্জার সময়ও হজ্ব আদায় বন্ধ করা হয়নি।

অবশ্য এ বছর যদি শেষ পর্যন্ত হজ্ব বাতিল করা হয় তবে তা সহজে মেনে নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে সৌদি আলেমদের পক্ষ থেকে। কেননা, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। চরম করোনা ঝুঁকির মধ্যে হজ্ব বাতিল না করা হলে অনেক মানুষের জীবন হুমকির মধ্যে পড়বে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য