শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

বাবুনগরী জামায়াতের সাথে মিলে কাজ করে: মাওলানা আনাস মাদানী: তামাদ্দুন



নিজস্ব প্রতিনিধি: তামাদ্দুন ২৪ ডটকম: গত ক’দিন যাবত আল্লামা আহমদ শফির ছেলে মাওলানা আনাস মাদানীর একটি অডিও রেকর্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি করেছে, অডিওতে তিনি বাবুনগরী সাহেবকে জামায়াতের এজেন্ট হিসেবে আখ্যায়িত করেন, কথাবার্তার একপর্যায়ে রেগে গিয়ে কলারকে চুপ থাকতে বলে কল কেটে দেন। আলাপের বিস্তারিত তামাদ্দুনের পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো.....

কলার: আসসালামু আলাইকুম
আনাস মাদানী: ওয়াআলাইকুমুস সালাম

কলার: হ্যালো....., কে আনাস মাদানী সাহেবে?
আনাস মাদানী: জ্বি

কলার: হুজুর আমরাতো আপনার ভক্ত, এখন যে বিভিন্ন সমালোচনা শুনছি, এগুলো একটু স্পষ্ট করলে ভালো হয়।
আনাস মাদানী: স্পষ্ট কয়টা করবো? আমারতো আব্বাকে নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়, আব্বা অসুস্থ, বিভিন্ন কাজ আছে, সবগুলো যদি স্পষ্ট করতে চাই তাহলেতো আমাকে আর কোনো কাজ করতে হবেনা।

কলার: আপনি একবার লাইভে এসে বিষয়গুলো স্পষ্ট করেন!
আনাস মাদানী: ঠিক আছে আমি একবার লাইভে আসবো, এরপরে আরেকটা বিষয় আসবে, আবার লাইভে আসতে হবে, এরপর আরেকটা বিষয় আসবে, তখন আবার আসতে হবে, জাহেলদের জবাব কেনো দিবো আমি, এজন্য আমি আল্লাহর উপর ছেড়ে দিলাম।

কলার: এখনতো পুরো বাংলাদেশ, পুরো কওমী অঙন বিষয়গুলো নিয়ে বিভিন্ন মতানৈক করছে,
আনাস মাদানী: যাদের প্রয়োজন হয় তারা সামনে আসবে, আমার সাথে কথা বলবে, অসুবিধা নাই। আমিতো সেটা করছি।

কলার: আপনারা একটু দয়া করে বলে দেন আমরা কাদেরকে এখন অনুসরণ করবো, কাদেরকে আকাবির মানবো?
আনাস মাদানী: আপনাদের আকাবির যারা ছিলো তারাই আছে।

কলার: এখন মানুষ আমাদেরকে হাসির পাত্র বানাচ্ছে, আপনারা আমাদের রক্ষা করেন প্লিজ!
আনাস মাদানী: আমরা করছিনা, এটা বাবুনগরী করছে, বাবুনগরী জামায়াতের সাথে কাজ করছে, উনার সাথে এটা আপনারা মতবিনিময় করেন।

কলার: বাবুনগরী সাহেবকেতো আমরা দেখলাম সবসময় বাতিলের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিচ্ছে ?
আনাস মাদানী: উনি সবসময় কঠোর অবস্থান নেয়, শাপলা চত্ত্বরে জামায়াতের সাথে মিলে হেফাজতকে মার খাওয়ালো, এগুলো সব ডুকোমেন্ট আছেতো।

কলার: ডোকোমেন্ট থাকলে আপনারা পেশ করেন, তাহলে আমরা বাবুনগরীকে বয়কট করবো।
আনাস মাদানী; ঠিক আছে, সময় আসলে পেশ করবো ইনশাআল্লাহ।

কলার: কিন্তু বাবুনগরীর পক্ষেতো পুরো কওমী অঙন?
আনাস মাদানী: হুম, পুরা কওমী অঙন আছে, পুরো দুনিয়া আছে।

কলার: আহমদ শফি সাহেবকেতো কেউ দোষারোপ করছেনা, তাকে ব্যবহার করা হচ্ছে।
আনাস মাদানী: তাকে ব্যবহার করা হচ্ছে না তিনি ব্যবহার হচ্ছেন, এসে দেখেন। সরজমিনে এসে দেখেন, উনার সাথে কথা বলে দেখেন।শুনে কথা কোনো বিশ্বাস করবেন আপনারা? উনি এখনো জীবিত আছেন, স্বজ্ঞানে আছেন, এখনো উনি মাদরাসায় আছেন। আপনারা কি এই হাদিস জানেননা? যা শুনা তাই বলিতে থাকা, মিথ্যাবাদী হওয়ার জন্য যথেষ্ঠ?

কলার: আচ্ছা বাবুনগরী সাহেব কি আপনার উস্তাদ না?
আনাস মাদানী: না আমার উস্তাদ না, আমি পড়িনি উনার কাছে।

কলার: একটা কথা খেয়াল রাখবেন, উনাকে যদি আপনারা কোনোভাবে ক্ষতি করেন তবে বাংলাদেশের অবস্থা কিন্তু আপনারা শামাল দিতে পারবেননা।
আনাস মাদানী: বারোটা বাজাইয়া ফেলবেন আপনারা? তেরোটা বাজাইয়া ফেলবেন আপনারা?

কলার: আমরা বলছিনা, পুরো বাংলাদেশের পরিবেশ আপনারা দেখতেই পারছেন।
আনাসা মাদানী: একদম চৌদ্দটা বাজাইয়া ফেলবেন আপনারা? কোনো সমস্যা নাই।

কলার: চৌদ্দটা বাজাবোনা, আপনি এভাবে কথা বলছেন কোনো?
আনাস মাদানী: আপনি আমাকে কেনো এভাবে কথা বলছেন, আপনি আমাকে সার্চ করে কথা বলছেন কোনো? আপনি কে আমাকে সার্চ করে কথা বলার? চুপ থাকেন!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য