শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

মানবতা বিবর্জিত স্বাস্থ-ব্যবস্থা, আমি বাকরুদ্ধ: তামাদ্দুন


ধিক্কার জানাই দুর্নীতিগ্রস্ত এমন স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে যে স্বাস্থ্য খাতে কোটি কোটি টাকা দুর্নীতি হয় আর চিকিৎসার অভাবে মারা যায় এমন হাজারো গরিব দুঃখী মানুষ

মানবতা আজ বিবর্জিত স্বাস্থ-ব্যবস্থা আজ প্রশ্নবিদ্ধ। মৌলিক অধিকার আজ জাদুঘরে। করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর মিছিলে যোগ হল রাউজানের আড়াই বছরের শিশু ফারিয়া।

করোনার উপসর্গ শ্বাসকষ্ট ও পা ফুলে যাওয়ায় তার ঠাঁই হয় নি কোথাও। প্রথমে গিয়েছিল টেক্সটাইলের একটা হাসপাতালে (ডাক্তার নেই), তারপর ছুটে আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে (সিট নেই), এরপর চট্টগ্রাম মেডিকেলে এসেও আগ্রহ দেখাচ্ছে না কেউ!

পরে উপস্থিত সাংবাদিকদের চাপের মুখে অনেকক্ষণ পর চমেকের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ৯ নং শিশু ওয়ার্ডে নিয়ে যেতে বলে। বাবা ড়েদৌঁড়ে ৯ নং ওয়ার্ডের দিকে ছুটতে থাকেন অবুঝ শিশুকে কাঁধে নিয়ে। কিন্তু শিশু ওয়ার্ডের ভিতর আর ঢুকার দরকার পড়েনি ফারিয়ার। বাবার কাঁধে মাথা রেখেই চলে যায় না ফেরার দেশে।

তার বাবা-মা আদরের সন্তানের মৃত্যুটা কোনক্রমেই মেনে নিতে পারছেন না। উপস্থিত সাংবাদিকরাও বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন!


ছবি: এসএম তামান্না

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য