শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

আমি সরকার বিরোধী নই, বাতিল শক্তির বিরোধী: আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী

 


ইবনে সাবিল-তামাদ্দুন: হেফাজত মহাসচিব, হাটহাজারী মাদরাসার শাইখুল হাদিস ও শিক্ষাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, আমি সরকার বিরোধী নই, সরকারের বিরুদ্ধে কোন এজেন্ডা বাস্তবায়নেও জড়িত নই; তবে আমি ইসলাম ও দেশ বিরোধী সকল বাতিল শক্তির বিরোধী।
আজ ১৯ অক্টোবর সোমবার হাটহাজারী মাদরাসার দাওরা-হাদীস মিলনায়তনে দুই সহস্রাধিক ছাত্রকে বুখারী শরীফের পাঠদানকালে ৯৯ নং হাদীসের ব্যখ্যায় তিনি এসব কথা বলেন।
হাদিসটি হলো– আবূ হুরায়রা (রা.) বর্ণনা করেন, একদা আল্লাহর রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে প্রশ্ন করা হল, হে আল্লাহর রসূল! কিয়ামতের দিন আপনার সুপারিশ লাভের ব্যাপারে কে সবচেয়ে অধিক সৌভাগ্যবান হবে? আল্লাহর রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন, কিয়ামতের দিন আমার শাফা’আত লাভে সবচেয়ে সৌভাগ্যবান হবে সেই ব্যাক্তি যে একনিষ্ঠচিত্তে لآ إِلَهَلا إله إلا الله (আল্লাহ ব্যতীত প্রকৃত কোন ইলাহ নেই) বলে।সহিহ বুখারী, হাদিস নং ৯৯
আল্লামা বাবুনগরী বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যার 'লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ' ঠিক থাকবে সে তাঁর শাফায়াত পাবে। কবিরা গুনাহ করেছে এমন ব্যক্তিও যদি 'লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ'-এর ক্ষেত্রে একনিষ্ঠ থাকে, তাঁরও ক্ষমা পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। তাই কবিরা গুনাহ করে ফেললে হতাশ হওয়া যাবে না। কিন্তু যার 'লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ' ঠিক নেই, তাঁর কিছুই নেই। সে আল্লাহর দরবারে ধরা পড়ে যাবে।
তিনি আরো বলেন, আমি হক কথা বললেই শত্রুদের কাছে সেটা সরকারের বিরোধিতা হয়ে যায়। আমি কখনো সরকার বিরোধী ছিলাম না। আমার শত্রুরা তিন বছর ধরে আমাকে সরকার বিরোধী প্রমাণের অপচেষ্টা চালিয়েছে। কিন্তু তাঁরা সফল হয়নি। সরকার তাদের কথা বিশ্বাস করেনি। অন্যথায় সরকার আমাকে গ্রেফতার করত।
তিনি আরো বলেন, আমি সবসময় বলে এসেছি– আমি বাতিল শক্তির বিরোধী। নাস্তিক-মুরতাদ বিরোধী। এবং ইসলামের সকল দুশমনের বিরোধী। আমি সরকার বিরোধী এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য আসিনি। আমি 'লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ'-এর এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য এসেছি। অতীতেও নাস্তিক-মুরতাদ ও ইসলাম বিরোধী সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে আমার বলিষ্ঠ ভূমিকা ছিল। এবং সামনেও থাকবে, ইনশাআল্লাহ।

সুত্র: আবু জোবায়ের

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য