শিরোনাম

[getTicker results="10" label="random" type="ticker"]

কুমিল্লা জেলা যুব উলামা পরিষদ এর উদ্যোগে ‘জলসায়ে না'তে রাসূল (সা.)’ অনুষ্ঠিত: তামাদ্দুন

 


ইবনে সাবিল-তামাদ্দুন: কুমিল্লা নগরীর প্রাণকেন্দ্র কান্দিরপাড় পূবালী চত্বরে ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে এই ‘জলসায়ে না'তে রাসূল (সা.)’ এর আয়োজন করে ‘কুমিল্লা জেলা যুব উলামা পরিষদ’৷ জলসাটি আজ বিকালে আছরের পর থেকে মাগরিব পর্যন্ত চলতে থাকে৷ এতে রংধনু সাংস্কৃতিক ফোরাম, পারাবার শিল্পীগোষ্ঠী সহ কুমিল্লা নগরীর উল্লেখযোগ্য ইসলামী শিল্পীরা না'তে রাসূল পরিবেশন করেন৷

যুব উলামা পরিষদের মুখপাত্র মুফতি নাজমুল হাসানের সভাপতিত্বে, মুফতি শরীফ আহমদ আশরাফী ও মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহর সঞ্চালনায় জলসায় কুমিল্লার বিভিন্ন নবীন আলেমগণ অতিথি বক্তব্য রাখেন৷ এই সময় পরিষদের সমন্বয়কারী মুফতি ইলিয়াস রাজাপুরী, যুগ্ন সমন্বয়কারী হাফেজ মাওলানা তালহা, স্থায়ী কমিটির সদস্য মাওলানা রফিকুল ইসলাম, মাওলানা জিয়া উদ্দিন সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকেন৷

উদ্বোধনী বক্তব্যে নেতারা বলেন, বিশ্বনবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ছিলেন বিশ্বের জন্য শান্তির দূত৷ তিনি পৃথিবীর জুলুম অত্যাচারের ঘোর অমানিশা কেটে শান্তির পয়গামে ইসলামের স্বচ্ছ সূর্যের উদয় ঘটান৷ তিনি ছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ মানব, যার ব্যাপারে অন্যান্য ধর্মালম্বীদেরও স্পষ্ট স্বীকৃতি রয়েছে৷ এমন মহামানবের বিরুদ্ধে প্রাণ সরকার যে ধৃষ্টতা প্রদর্শন করেছে, তাতে শুধু মুসলমান নয় সকল মানুষের অন্তরেই আঘাত লেগেছে৷ তাই ফ্রান্সের সরকার এই অপরাধের কারণে গোটা বিশ্ববাসীর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে৷ নতুবা ফ্রান্সের পণ্য বয়কট সহ চলমান আন্দোলন গুলো তীব্র থেকে আরো তীব্রতর হবে৷

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য